কেশবপুরে পেশাদার গরুচোর নাঈম গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা

0
44

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি : কেশবপুরে হাড়িয়াঘোপ গ্রামের গরু চুরি করতে গিয়ে গণপিটুনির শিকার হয়ে নিহত নতুন মুলগ্রামের মশিয়ার রহমান সরদারের ছেলে আনিন নাঈম (২৪) ছিল একজন পেশাদার চোর। অথচ পেশাদার গরুচোর নাঈম গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনাকে তার পিতা মশিয়ার রহমান সরদার ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলার ভান্ডারখোলা এলাকায় প্রতি রাতেই বিভিন্ন বাড়িতে গরু চুরি হচ্ছিল। খোপদহি গ্রামের আব্দুল জলিল মোড়ল, একই গ্রামের ফারুক হোসেন, মোমিনপুর গ্রামের মিজানূর সরদার, ভান্ডারখোলা গ্রামের জামাল উদ্দীন শেখ, হাড়িয়াঘোপ গ্রামের রাশিদুল ইসলাম বিশ্বাস, একই গ্রামের রিয়াজ উদ্দীন বিশ্বাসের গোয়াইল ঘর থেকে ইতিপূর্বে কয়েক লাখ টাকার গরু চুরি হয়ে যায়। চোরেরা গরু চুরি করে গোয়াল ঘরে লিখে রেখে যায় “গোয়াল তোমার গরু আমার”। যে কারণে গরু চুরি ঠেকাতে এলাকাবাসিরা প্রতি রাতেই পাহারা দিয়ে আসছিলো। গত ১১ ফেব্রুয়ারী সোমবার রাতে হাড়িয়াঘোপ গ্রামের আবদুস সোবহানের বাড়িতে গরু চুরি করতে আসলে এলাকাবাসিরা খবর পেয়ে চোরকে ধাওয়া দেয়। পালিয়ে যাওয়ার সময় চোরটি ভান্ডাখোলা গ্রামে রাস্তার পাশে একটি টিউবওয়েলে বেধে পড়ে যায়। এলাকাবাসিরা সেখানে তাকে মারপিট করলে সে নিহত হয়।

এদিকে গণপিটুনির শিকার হয়ে নিহত আনিন নাঈম (২৪) ছিল একজন পেশাদার চোর। তার বিরুদ্ধে মূলগ্রামের প্রদীপ কংসবণিক, একই গ্রামের শংকর মন্ডল, ভোগতি কামাল হোসেন, দোরমুটিয়া গ্রামের আব্দুল মজিদ খাঁ, নতুন মূলগ্রামের খলিলুর রহমানের বাড়িতে চুরির অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছিল। তাছাড়া চোর আনিন নাঈমের শিকারোক্তি অনুযায়ী সাতক্ষীরা জেলার কলারোয়া থেকে চুরির মালামাল উদ্ধার করা হয়েছিল। তার বিরুদ্ধে কেশবপুর ও পার্শ্ববর্তী কলারোয়া থানাসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক চুরি মামলা রয়েছে।

এদিকে অথচ পেশাদার গরুচোর নাঈম গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনাকে তার পিতা মশিয়ার রহমান সরদার ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। গণপিটুনিতে নিহতের পিতা মশিয়ার রহমান সরদার ভান্ডারখোলা, হাড়িয়াঘোপ, ভোগতি ও তেঘরী গ্রামের সামাজিক ব্যক্তিদের ফাঁসাতে একটি মিথ্যা কাল্পনিক নাটক সাজিয়ে গত ১৯ ফেব্রƒয়ারী যশোরে আদালতে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। যে মিথ্যা ঘটনা দৈনিক লোকসমাজ ও দৈনিক প্রতিদিনের কথা পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।

এলাকাবাসি উক্ত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। গণপিটুনিতে নিহতের ঘটনাকে বিভিন্ন খাতে প্রবাহিত করে নিরিহ মানুষকে হয়রানির চেষ্টার ঘটনায় উপজেলার সচেতন মহলের মাঝে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তাঁরা অবিলম্বে ষড়যন্ত থেকে বিরত থাকার জন্য গণপিটুনিতে নিহতের পিতা মশিয়ার রহমান সরদারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।