নেছারাবাদের স্বরুপকাঠীতে সোহাগদলে মাকে বন্দী রেখে নির্যাতনে অভিযোগ শাহাদাৎ জমদ্দারের বিরুদ্ধে

0
130

সুমন খান, স্টাফ রিপোর্টার : ভ্রষ্ট ও বদ চরিত্রের মানুষ হিসেবে স্বরূপকাঠি উপজেলার সোহাগদল ইউনিয়নে মৃত খালেক জমদ্দারের ছেলে শাহাদাৎ জমদ্দারের(৩৮) বিরুদ্ধে ঝুড়ি মেলা ভার। দক্ষিণ পূর্ব সোহাগদলের পেদাবাড়ি এলাকায় বসবাস শাহাদাৎ এর। এলাকায় শাহাদতের বিরুদ্ধে অভিযোগের অন্ত নাই। নিজ জন্ম দাত্রী মা সালেহা বেগম(৮১)কে এক ধরনের জিম্মি করে বাবার সম্পত্তির অধিকার সুকৌশলে লিখে নেয় পাকাপোক্ত ভাবে।

লোভী প্রকৃতি, হীন স্বার্থপর ও বদ চরিত্রের অধিকারী মোঃ শাহাদাৎ জমদ্দার আপন বড় ভাই মোঃ সহিদ সহ সেজ ভাই মোঃ কাইউম ও ছোট ভাই বেল্লালকে বৈধ জায়গার অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছে। পাশাপাশি আপন দুই বোন আলেয়া ও মাফিয়াকেও বঞ্চিত করছে লোভী মেঝ ভাই শাহাদাৎ জমদ্দার (৪০)। গত ১৩-০৩-২০১৯ তারিখে স্বরূপকাঠি সাবরেজিস্টার অফিসে মাকে নিয়ে গিয়ে ৪ শতাশং বাবার সম্পত্তির অধিকার লিখে নেয় প্রতারণা করে ।

অভিযোগ উঠেছে মাকে জিম্মি সহ শারীরিক নির্যাতনের মাধ্যমে এ সম্পত্তি লিখে নেয় লম্পট শাহাদাৎ। বড় ভাই সহ অন্য ভাই বোনরা মেঝ ভাইয়ের এহেনও জালিয়াতির ঘটনা এলাকার মেম্বার সহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আঃ রশিদ মিয়াকে অবগত করেন। তিনি প্রাথমিক ভাবে বিষয়টির সত্যতা পান। এদিকে প্রতারনার বিষয়টি সোহাগদলের সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে বলে জানা যায়।

এদিকে দঃ পূর্ব সেহাগদল গ্রামের বহু বাসিন্দারা নাম না প্রকাশের শর্তে জাতীয় দৈনিক সকালের সময়, মুক্ত খবরও স্থানীয় দৈনিক দখিনের খবরকে বলেন, আমাদের এলাকায় শাহাদাৎ একটি বাজে চরিত্রের নাম।দুইটি বউকে বিদেশে রেখে এলাকায় নিজ মা, ভাই ও বোনদের জিম্মি করেছে।নোংডা চরিত্রের শেষ নাই শাহাদতের। এলাকার এক প্রতিবাদী নারী জানান,শাহাদতের কাছে তার সম্পর্কে ভাগনী লিপিও রেহাই পায়নি লেলুপ দৃষ্টি থেকে। এক ধরনের নিঃলজ্জ ও বেহায়া প্রকৃতির মানুষ হল শাহাদাৎ জমদ্দার।

এলাকার সুশীল সমাজের মানুষ মিডিয়া কে বলেন,আসলে স্থানীয় পরিষদের আদালত ছাড়াও এহেনও লোভী কে কঠিন শাস্তির আওতায় আনা দরকার। তবে শাহাদাৎ জমদ্দারের মুঠো ফোনে কথা বলার চেষ্টা করেন জেলার মিডিয়া কর্মীরা। সাংবাদিক পরিচয় পাওয়ার সাথে সাথে ফোন কেটে দেন টাউট শাহাদাৎ জমদ্দার। সর্বশেষ এলাকায় চেয়ারম্যান বিষয়টি গুরত্ব সরকারে নিয়েছেন সুন্দর সমাধানের জন্য। তবে বড় ভাই সহ বোনেরা লোভী ভাইয়ের কঠিন বিচারের দাবি জানান।