পরমাণু বোমায় ভারতের থেকে অনেক এগিয়ে পাকিস্তান

0
41

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সীমান্ত রেখা ‘এলওসি’ পেরিয়ে পাকিস্তানে ভারতীয় বিমান বাহিনীর হামলার পর থেকে দু’দেশের মধ্যকার উত্তেজনা বিরাজ করছে। ইতোমধ্যে ভারতের বিরুদ্ধে আকাশসীমা লংঘনের অভিযোগ তুলে পাকিস্তানও পাল্টা হুমকি দিয়ে রেখেছে। শুধু তাই নয়, আজ বুধবার পরমাণু অস্ত্র নিয়ে বৈঠকে বসছে পাকিস্তান। এর ফলে প্রশ্ন উঠছে কেন পাকিস্তান পরমাণু অস্ত্রে নিয়ে বৈঠকে বসছে? তাহলে কি পাকিস্তান পরমাণু অস্ত্রের হামলা চালাতে পারে-এমন আশঙ্কাও দেখা দিয়েছে অনেকের মনে।

সামরিক বিভিন্ন দিকে পাকিস্তানের থেকে ভারত এগিয়ে থাকলেও পরমাণু অস্ত্রের মজুতের দিক থেকে ভারতের থেকে এগিয়ে পাকিস্তান। বিশ্বের বিভিন্ন সংস্থার অনুসন্ধানে করা তালিকা সেটাই বলছে।

যুক্তরাষ্ট্রের সিএনবিসি টিভি চ্যানেলের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, ১৪ হাজার ৫০০ পরমাণু অস্ত্রের মজুদ রয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি রয়েছে রাশিয়ার কাছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, দক্ষিণ এশিয়ার দুই দেশ পরমাণু অস্ত্রে সমৃদ্ধ। এর মধ্যে এগিয়ে পাকিস্তান।

ভারত সর্বপ্রথম তাদের পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা চালায় ১৯৭৪ সালে রাজস্থানের পোখরানে। এর ২৪ বছর পর ১৯৯৮ সালে পাকিস্তান বেলুচিস্তানের রাসকো পাহারে তাদের প্রথম পরমাণু অস্ত্রের পরীক্ষা চালায়। এবং সাম্প্রতিক সময়ের পাকিস্তান তাদের পরমাণু অন্ত্রের মজুদ বৃদ্ধি করে।

সিএনবিসি বলছে, বর্তমানে পরমাণু অস্ত্রের সংখ্যার দিক থেকে পাকিস্তানের অবস্থান ষষ্ঠ। দেশটিতে ১৩০-১৪০টি পরমাণু অস্ত্র রয়েছে। পাকিস্তানের ঠিক পরের অবস্থানে ভারত। দেশটিতে পরমাণু অস্ত্রের সংখ্যা ১২০-১৩০টির মতো। ফলে ১০টির মতো পরমাণু অস্ত্র বেশি রয়েছে পাকিস্তানের।

এদিকে, ভারতভিত্তিক নিউজ বাইটের তথ্যানুযায়ী, পাকিস্তানের পরমাণু অস্ত্রের সংখ্যা ১৪০-১৫০টি এবং ভারতের ১৩০-১৪০টি।