ফুলপুরের সেচ্ছাসেবা ক্লিন সোসাইটি নিউজের পর বাসস্ট্যান্ডের ময়লা পরিষ্কার

0
115

তপু রায়হান রাব্বি ফুলপুর(ময়মনসিংহ)প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের ফুলনগরী ফুলপুরের বাসস্ট্যান্ড ময়লার জন্য বিভিন্ন সমস্যায় পরেছিলেন যেমন পথচারী তেমনি ময়লার পাশে থাকা ব্যবসায়ীকরা।এমনি একটি নিউজ করেছিলাম বিভিন্ন অনলাইসহ পত্রিকায় ২০শে মে রোজ সোমবার যে নিউজের হেটলান বা শিরোনাম ছিল “ফুলপুরের বাসস্ট্যান্ড এখন ময়মনসিংহের ময়লাকান্দা”। তার পর এ নিউজ সেচ্ছাসেবা সংগঠন ফুলপুরের ক্লিন সোসাইটি দেখে পেয়ে তারা পরিষ্কার করার জন্য আজ ২৪শে মে রোজ শুক্রবার সকালে কার্যকর্ম চালাই। তাদের এ মহত কাজে যোগদেন তাক্ওয়া অসহায় সেবা সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক/সাংবাদিক মোঃ তপু রায়হান রাব্বি সেনিজেও কাজে লেগে পরেন । পথচারীরা জানান, পৌর শহরের প্রাণকেন্দ্রে যদি এভাবে ময়লা আর পঁচা পানি জমে থাকে দিনের পর দিন, তাহলে ফুলের চাষ কি হবে ফুলপুরে ? তাই সেচ্ছাসেবা ক্লিন সোসাইটি যে ভাবে কাজ করছে তাদের কে একটু উৎসাহিত করার জন্য মেয়র পৌর মেয়র সহ কাউন্সিলর দের কে অনুরোধ জানাচ্ছি যে যে স্থানে পানি জমে থাকে সেই সব স্থানে যেন মাটি দিয়ে ভরাট করে দেয় তাহলে ক্লিন সোসাইটি সদস্যদের কাজ করতে সহজ হবে। পানি জমে থাকার কারণে তারা ভালোভাবে পরিষ্কার করতে পারে না তা আমরা আজ দু চোখে দেখতে পারছি। আর ক্লিন সোসাইটি এর প্রতি জানাচ্ছি আমাদের পক্ষ থেকে আন্তরিক ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা তোমরাই পারবে ফুলপুর কে পঁচা দুর্গন্ধময় ময়লা আবর্জনার পরিষ্কার করে ফুলের বাগান তৈরি করতে ফুলপুরে। এটা আমাদের অহংকার গর্ব করার মত যে ক্লিন সোসাইটির কারণে আজ ময়লা আবর্জনার কারনে দূষিত হচ্ছে না পরিবেশ, ছড়াচ্ছে না রোগ জীবাণু, পাশাপশি সৌন্দর্য নষ্ট করছে না প্রকৃতির সৌন্দর্য ফোটে উঠছে ফুলপুরে।তোমরাই তো আগামী দিনের ভবিষ্যৎ তোমাদের প্রেরণায় আগামী প্রজন্ম শিক্ষা গ্রহণ করবে। ফুলপুরের সেচ্ছাসেবা ক্লিন সোসাইটির সদস্যরা জানান, আমরা ফুলপুরকে ফুলের বাগানের মত সাজাতে চাই। কিন্তু তার জন্য আমাদদের পাশে সবাইকে দেখতে চাই। তাদের সমস্যার কথাও বলেন, সবাই যদি ময়লা গুলো ছিটিয়ে ছড়িয়ে না ফেলে একএকটি স্থানে স্থুপ করে রাখে ব্যবসায়ীকরা তাহলে আমাদের কাজ করতে সহজ হয়। আরোও জানা ময়লা আর্বজনা পরিষ্কার করে একটি নির্দিষ্ট স্থান পাই না ফেলার জন্য। আর এতে করে আমাদের অনেক কষ্ঠ হয় কোথায় ফেলবো এসব ময়লা। তাই পৌরসভার মেয়র মোঃ আমিনুল হক সাহেরের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে চাই যেন একটি নিদিষ্ট স্থান বেরকরে দেয় ময়লা আবর্জনা ফেলানোর জন্য। তাক্ওয়া অসহায় সেবা সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা ও পরিচালক জানান, এ ময়লা আবর্জনার কারনে দূষিত করছে পরিবেশ, ছড়াচ্ছে রোগ জীবাণু, পাশাপশি সৌন্দর্য নষ্ট করছে প্রকৃতির আর মশা মাছির ডিম পারার ক্যাম্পসহ জনগণের ভোগান্তির তো শেষ নেই। তাই এ দুর্গন্ধ ময় ময়লা আবর্জনার যেন প্রতি সপ্তাহে পরিষ্কার করার ব্যবস্থা করেন পৌর মেয়র সে দিকে লক্ষরাখার জন্য সুদৃষ্টি কামনা করছি এবং ক্লিন সোসাইটিদের প্রতি আমার সংস্থার সকল সদস্যদের পক্ষ থেকে তোমাদের এ মহৎ কাজ করার জন্য দোয়া ও শুভ কামনা রইল। তোমরাই পারবে, এগিয়ে যাও সামনের দিকে, আমরা আছি তোমাদের পাশে ।